রিজার্ভ চুরি: ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের লক্ষ্যে নিউইয়র্ক যাচ্ছে প্রতিনিধিদল

bangladeshbank1
শেয়ারটাইম্‌স২৪ডটকম: বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারে দ্বিতীয়বারের মতো ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসতে যাচ্ছে ব্যাংকের প্রতিনিধিদল। এ জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের চারজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নিউইয়র্ক যাচ্ছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি সূত্র জানিয়েছে, রিজার্ভ থেকে চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধারের অগ্রগতি ও পরবর্তী পদক্ষেপ সম্পর্কে বৈঠক করার বিষয়টি গত সপ্তাহে চূড়ান্ত হয়েছে। সর্বশেষ মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত হয়, ব্যাংকের চারজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৈঠকের উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক যাবেন।

সূত্র জানিয়েছে, সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ রোববার প্রতিনিধিদল নিউইয়র্কে যাবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মো. রাজি হাসান এই প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন। এই প্রতিনিধিদল যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক (এফআরবি) ও সুইফট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করবে।

বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের মহাব্যবস্থাপক দেবপ্রসাদ দেবনাথ বলেন, ডেপুটি গভর্নর রাজি হাসানের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি দল নিউইয়র্ক যাচ্ছে। আগামী ১৫ থেকে ১৮ তারিখ পর্যন্ত সেখানে কয়েকটি ধাপে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

এর আগে গত ১০ মে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় সুইজারল্যান্ডের ব্যাসেল শহরে। ওই বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, নিউইয়র্ক ফেডের প্রেসিডেন্ট উইলিয়াম ডাডলি ও সুইফট কর্তৃপক্ষ উপস্থিত ছিল।

ওই বৈঠক শেষে যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করা হয় এফআরবি নিউইয়র্কের ওয়েবসাইটে। তাতে বলা হয়, চুরি যাওয়া রিজার্ভের অর্থ উদ্ধারে একযোগে কাজ করবে বাংলাদেশ ব্যাংক, এফআরবি নিউইয়র্ক ও সুইফট। এ ছাড়া বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাইবার এবং অন্যান্য কাঠামোগত নিরাপত্তা ত্রুটি নিয়ে আলোচনা হয়। পরস্পরের মধ্যে তথ্যবিনিময়, চুরি যাওয়া অর্থ উদ্ধার এবং দোষীদের বিচারের আওতায় আনতে এই তিন পক্ষ একযোগে কাজ করতে সম্মত হয়।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে ৮১ মিলিয়ন ডলার ডিজিটাল পদ্ধতিতে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে চুরি করা হয়। যা যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে গচ্ছিত ছিল।

সর্বশেষ রিজার্ভ থেকে চুরি যাওয়া দেড় কোটি ডলার ফিরিয়ে দিতে যাচ্ছে ফিলিপাইন। বাকি টাকা প্রাপ্তির বিষয়েও আশা জেগেছে। তবে কীভাবে এবং কবে নাগাদ এই টাকা পাওয়া যাবে, এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো ঘোষণা আসেনি।