সর্বোচ্চ সূচকের রেকর্ড পুঁজিবাজারে

dsecselogo
শেয়ারটাইম্‌স২৪ডটকমঃ লেনদেনের উত্থান ও সূচকের ইতিবাচক প্রবণতায় সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে রেকর্ড গড়লো দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। মঙ্গলবার দিনশেষে ডিএসই’র প্রধান মূল্য সূচক আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২৯.১৩ পয়েন্ট বেড়ে ৫৭২৪ পয়েন্টে স্থিতি পায়। যা এ সূচক গঠনের পর সর্বোচ্চ।

এর আগে, চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি রেকর্ড গড়েছিল ডিএসইএক্স সূচক। যদিও পরবর্তীতে দর সংশোধনে সূচক ৫৩২২ পয়েন্টে নেমে গিয়েছিল। এদিকে, ডিএসই’র রেকর্ড গড়ার দিনে লেনদেনে উল্লম্ফন দেখা গেছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)। এদিন চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন ও সূচক ছিল ঊর্ধ্বমুখী। ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, ডিএসইতে লেনদেন হয় ৩২৬টি কোম্পানি ও ফান্ডের। এ সময় দর বেড়েছে ১২৯টির, কমেছে ১৬৯টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২৮টি প্রতিষ্ঠানের। এ সময় ৪৩ কোটি ৯৩ লাখ ৬৯ হাজার ৭৬৩টি শেয়ার লেনদেন হয়, যার বাজার মূল্য ছিল ১ হাজার ২৬৩ কোটি টাকা। এর আগরে কার্যদিবসে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৯৯৫ কোটি ৪০ লাখ টাকা। অর্থাৎ মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ২৬৭ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

দিন শেষে সর্বোচ্চ সূচকের রেকর্ড গড়লো পুঁজিবাজার। এদিন ডিএসইর সার্বিক মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ২৯.১৩ পয়েন্ট বেড়ে ৫৭২৪.৮৫ পয়েন্টে স্থিতি পায়। এ সময় শরীয়াহভিত্তিক কোম্পানিগুলোর মূল্য সূচক ডিএসইএস কমেছে ৪.৭৬ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক বেড়েছে ৪.৩৭ পয়েন্ট।

ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ব্যাংকিং খাতের কোম্পানি এবি ব্যাংক। এদিন কোম্পানিটির ৭৩ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। টার্নওভারে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল সিটি ব্যাংক, প্রতিষ্ঠানটির ৪৭ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৪৩ কোটি ৮৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে ছিল লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

এ ছাড়াও টার্নওভার তালিকায় থাকায় কোম্পানিগুলোর মধ্যে ইউসিবি ব্যাংকের ৩৮ কোটি ১৬ লাখ টাকা, ন্যাশনাল ব্যাংকের ৩৬ কোটি ৯৩ লাখ টাকা, ইসলামি ব্যাংকের ৩৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকা, আইএফআইসি ব্যাংকের ৩১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা, ব্র্যাক ব্যাংকের ২৮ কোটি ৬৬ লাখ টাকা, আরএসআরএম স্টিলের ২৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা ও বেক্সিমকোর ২৮ কোটি ১১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৪৯.৬৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৬৫ পয়েন্টে। দিনশেষে সিএসইতে ৯৪ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। লেনদেন হওয়া ২৫৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৭টির, কমেছে ১২৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৪টির।

সিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে ছিল এবি ব্যাংক। এ সময় কোম্পানিটির ৮ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হলো- ইর্স্টান ব্যাংক, এসিআই, ন্যাশনাল ব্যাংক, আইএফআইসি, বেক্সিমকো, ইউসিবি, সিটি ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক ও প্রিমিয়ার ব্যাংক।