দুই ব্রোকারেজ হাউজকে ৭ লাখ টাকা জরিমানা বিএসইসির

bsec
শেয়ারটাইম্‌স২৪ডটকমঃ আইন ভঙ্গের কারণে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) দুই ব্রোকারেজ হাউজকে ৭ লাখ টাকা জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সিকিউরিটিজ কোম্পানি দুইটি হচ্ছে : ডি. এন. সিকিউরিটিজ লিমিটেড এবং ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ লিমিটেড। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

আজ বৃহস্পতিবার বিএসইসির ৭৩৬তম কমিশন সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সূত্র মতে, বিএসইসি কর্তৃক পরিদর্শনের পর ২০১৮ সালের মে মাসের এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে ডি. এন. সিকিউরিটিজ কোম্পানির গ্রাহকদের ট্রেড সম্পাদনের জন্য কনফার্মেশন নোটস প্রদান না করে, পে ইন শ্লিপ সংরক্ষণ না করে, কোম্পানি আলাদ ওয়ার্কস্টেশনস এ ডিলার কোডে ট্রেড সম্পাদন না করায়, কনসোলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট (সিসিবিএ) এর অর্থ কোম্পানির নিজ নামে আইপিও শেয়ার ক্রয়ের জন্য ব্যবহার করে এবং কোম্পানি পাঁচ লাখ টাকার বেশি নগদ গ্রহণ করে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুলস ভঙ্গ করেছে। এসব সিকিউরিটিজ আইন ভঙ্গের দায়ে ডি. এন. সিকিউরিটিজকে ৫ লাখ টাকা জরিমানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন।

বিএসইসি কর্তৃক আরেক পরিদর্শনের পর ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসের এক প্রতিবেদনে দেখা যায় ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ কোম্পানির ব্যবসায়িক সত্যতা ও হালনাগাদ অবস্থা বিবেচনার জন্য হিসাব বই ও অন্যান্য ডকুমেন্টস প্রস্তুত ও সংরক্ষণ না করে, একজন অনুমোদিত প্রতিনিধিকে তার নিজের নামে সিকিউরিটিজ ক্রয়/বিক্রয় করতে দিয়ে, সিসিবিএ (কনসোলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকউন্ট) এ ঘাটতি থাকায় ও সিসিবিএ থেকে ডিলার অ্যাকাউন্টে অর্থ স্থানান্তর এবং তফসিলি ব্যাংকে একাধিক সিসিবিএ পরিচালনা করায়, কোম্পানি ফেব্রুয়ারি ২০১৭ মাসে দ্যা রিস্ক বেজড ক্যাপিটাল অ্যাডিকুইন্সি রেশিও ১:২০ পরিপালন না করে এবং কোম্পানির পরিচালক ও কর্মকর্তাদের ঋণ প্রদান করে বিএসইসি আইন ভঙ্গ করেছে। উক্ত সিকিউরিজ আইন ভঙ্গ করায় ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে ২ লাখ টাকা জরিমানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন।