হ্যান্ডকাপসহ পালিয়ে যাওয়া আসামির বাড়িতে আগুন

চাঁদপুর প্রতিনিধি : চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলায় পুলিশের হ্যান্ডকাপসহ পলাতক আসামি জসিমের বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।
বুধবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার টেককান্দি গ্রামের উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কানা জসিম ও হাইমচর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেলের বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কানা জসিম ও হাইমচর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রুবেল হাইমচর উপজেলার টেককান্দি গ্রামের মরইন্নার ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী সাহিদা বেগম ও হাফেজ মোক্তার আহম্মেদ জানায়, বুধবার ভোর ৪টায় দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তে আগুনের লেলিহান শিখা আশপাশে ছড়িয়ে পড়ে। যাতায়াত ব্যবস্থার কারণে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে আসতে পারেনি। পরে দীর্ঘ সময় চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন এলাকাবাসী। এ সময় জসিমের বাবা আনোয়ার হোসেন মরইন্না ভূইঁয়ার টিনসেট ঘরের আসবাবপত্র ও মোটরসাইকেল পুড়ে গেছে।
এলাকাবাসী ধারণা করছেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঘরের প্রত্যেক রুমে দাহন জাতীয় কোন পদার্থ ঢেলে আগুন লাগানো হয়েছে।
হাইমচর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহাবুদ্দিন জানায়, রাস্তা খারাপ হওয়ার কারণে তারা ঘটনাস্থলে যেতে পারেনি। আগুনের সূত্রপাত কিংবা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও নির্ধারণ করা যায়নি।
হাইমচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অলি উল্লাহ জানান, খবর পেয়ে থানার এসআই হালিম ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহের জন্য ঈর্ষান্বিত হয়ে কেউ এ ঘটনা ঘটাতে পারে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, গত ১৭ আগস্ট সোমবার রাতে মাদক বিরোধী অভিযানে হাতকড়া পড়া অবস্থায় জসিম পালিয়ে যায়। ওই সময় পুলিশের উপ-পরিদর্শকসহ (এসআই) ৫ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। পুলিশের ওপর হামলার মামলায় আনোয়ার হোসেন মরইন্নাসহ আটজন জেলহাজতে। মামলায় অভিযুক্ত প্রধান আসামি কানা জসিম, রুবেলসহ পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *